top of page
  • Writer's pictureLacsb.com

বাংলাদেশে পরিচালকদের দায়িত্ব ও দায়: আইনগত দায়িত্ব এবং ঝুঁকি




কোম্পানির মসৃণ পরিচালনা এবং বৃদ্ধিতে একটি কোম্পানির পরিচালকদের একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে। তারা কোম্পানির বিষয়গুলি পরিচালনা এবং কোম্পানি এবং এর স্টেকহোল্ডারদের উপকার করে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য দায়ী। বাংলাদেশে, পরিচালকরা বিভিন্ন আইনি বাধ্যবাধকতা দ্বারা আবদ্ধ, এবং এই বাধ্যবাধকতাগুলি মেনে চলতে ব্যর্থতার ফলে আইনি দায়বদ্ধতা এবং ঝুঁকি হতে পারে। এই নিবন্ধে, আমরা কিছু পরিস্থিতি এবং উদাহরণ সহ বাংলাদেশে পরিচালকদের আইনি দায়িত্ব এবং ঝুঁকি নিয়ে আলোচনা করব।



বাংলাদেশে পরিচালকদের আইনগত দায়িত্ব


1. সরল বিশ্বাসে এবং কোম্পানির সর্বোত্তম স্বার্থে কাজ করার দায়িত্ব: সরল বিশ্বাসে এবং কোম্পানির সর্বোত্তম স্বার্থে কাজ করার জন্য পরিচালকদের একটি বিশ্বস্ত দায়িত্ব রয়েছে। তাদের অবশ্যই সততার সাথে, যথাযথ যত্ন এবং পরিশ্রমের সাথে এবং এমনভাবে কাজ করতে হবে যা কোম্পানির দীর্ঘমেয়াদী সাফল্যকে উন্নীত করে।


দৃশ্যকল্প: একটি কোম্পানির একজন পরিচালক এমন একটি চুক্তি অনুমোদন করেন যা তার ব্যক্তিগত স্বার্থকে উপকৃত করে কিন্তু কোম্পানির সর্বোত্তম স্বার্থে নয়। কোম্পানির শেয়ারহোল্ডাররা তার বিশ্বস্ত দায়িত্ব লঙ্ঘনের জন্য পরিচালকের বিরুদ্ধে মামলা করতে পারেন।


2. যথাযথ যত্ন, দক্ষতা এবং অধ্যবসায় অনুশীলন করার দায়িত্ব: পরিচালকদের তাদের দায়িত্ব পালনের সময় যথাযথ যত্ন, দক্ষতা এবং অধ্যবসায় অনুশীলন করা আশা করা হয়। তাদের অবশ্যই যুক্তিসঙ্গত পদক্ষেপ নিতে হবে যাতে তাদের কাছে প্রয়োজনীয় তথ্য এবং কোম্পানির বিষয় সম্পর্কে বোধগম্যতা রয়েছে তা নিশ্চিত করে সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য।


দৃশ্যকল্প: একজন পরিচালক একটি বড় বিনিয়োগ অনুমোদন করার আগে কোম্পানির আর্থিক বিবৃতি পর্যালোচনা করতে ব্যর্থ হন। বিনিয়োগের কারণে কোম্পানির লোকসান হয় এবং শেয়ারহোল্ডাররা যথাযথ যত্ন ও পরিশ্রম না করার জন্য পরিচালককে দায়ী করে।


3. স্বার্থের দ্বন্দ্ব এড়াতে দায়িত্ব: পরিচালকদের অবশ্যই এমন পরিস্থিতি এড়াতে হবে যেখানে তাদের ব্যক্তিগত স্বার্থ কোম্পানির সাথে সংঘর্ষ হয়। যদি এই ধরনের দ্বন্দ্ব দেখা দেয়, তবে তাদের অবশ্যই তা বোর্ডের কাছে প্রকাশ করতে হবে এবং এই বিষয়ে ভোট দেওয়া থেকে বিরত থাকতে হবে।


দৃশ্যকল্প: একটি কোম্পানির একজন পরিচালক বোর্ডের কাছে তার আগ্রহ প্রকাশ না করেই একটি কোম্পানির সাথে একটি চুক্তি অনুমোদন করেন যেখানে তার যথেষ্ট আগ্রহ রয়েছে। শেয়ারহোল্ডাররা স্বার্থের সংঘাত এড়াতে তার দায়িত্ব লঙ্ঘনের জন্য পরিচালকের বিরুদ্ধে মামলা করতে পারেন।


4. গোপনীয়তা বজায় রাখার দায়িত্ব: পরিচালকদের অবশ্যই বাণিজ্য গোপনীয়তা, গ্রাহক তালিকা এবং আর্থিক তথ্য সহ কোম্পানির তথ্যের গোপনীয়তা বজায় রাখতে হবে। তারা অবশ্যই যথাযথ অনুমোদন ছাড়া কোম্পানির বাইরের কারও কাছে এই ধরনের তথ্য প্রকাশ করবেন না।


দৃশ্যকল্প: একটি কোম্পানির একজন পরিচালক অনুমোদন ছাড়াই তৃতীয় পক্ষের কাছে কোম্পানির গোপনীয় তথ্য প্রকাশ করেন। কোম্পানি গোপনীয়তা বজায় রাখার জন্য তার দায়িত্ব লঙ্ঘনের জন্য পরিচালকের বিরুদ্ধে মামলা করতে পারে।


5. আইন ও প্রবিধান মেনে চলার দায়িত্ব: পরিচালকদের অবশ্যই নিশ্চিত করতে হবে যে কোম্পানিটি সমস্ত প্রযোজ্য আইন ও প্রবিধান মেনে চলছে। তাদের অবশ্যই পরিবর্তনশীল আইন ও প্রবিধানের সাথে আপ টু ডেট থাকতে হবে এবং সম্মতি নিশ্চিত করতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে হবে।


দৃশ্যকল্প: একটি কোম্পানির একজন পরিচালক কোম্পানির ক্রিয়াকলাপের জন্য প্রযোজ্য পরিবেশগত বিধিগুলি মেনে চলতে ব্যর্থ হন। কোম্পানি অ-সম্মতির জন্য জরিমানার সম্মুখীন হয়, এবং পরিচালককে আইন ও প্রবিধান মেনে চলার জন্য তার দায়িত্ব লঙ্ঘনের জন্য দায়ী করা যেতে পারে।




বাংলাদেশে পরিচালকদের দায় ও ঝুঁকি


1. নাগরিক দায়: পরিচালকদের তাদের আইনি দায়িত্ব লঙ্ঘনের জন্য নাগরিকভাবে দায়ী করা যেতে পারে। এর ফলে কোম্পানি বা এর স্টেকহোল্ডারদের ক্ষতিপূরণ দিতে হতে পারে।


উদাহরণ: একটি কোম্পানির একজন পরিচালক এমন একটি প্রকল্প অনুমোদন করেন যা পরিবেশের ক্ষতি করে। কোম্পানি ক্ষতিগ্রস্ত পক্ষের কাছ থেকে একটি মামলার সম্মুখীন হয়, এবং আদালত পরিচালককে বাদীদের ক্ষতিপূরণ দেওয়ার নির্দেশ দেয়।


2. ফৌজদারি দায়: পরিচালকরা প্রতারণা, আত্মসাৎ বা ঘুষের মতো অপরাধের জন্য ফৌজদারি দায়বদ্ধতার সম্মুখীন হতে পারেন। এই ধরনের অপরাধের জন্য তাদের কারাদণ্ড, জরিমানা বা উভয়ই হতে পারে।


উদাহরণ: একটি কোম্পানির একজন পরিচালক ব্যক্তিগত লাভের জন্য কোম্পানির অ্যাকাউন্ট থেকে তহবিল আত্মসাৎ করেন। কোম্পানি পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করে এবং পরিচালককে গ্রেপ্তার করা হয় এবং আত্মসাতের অভিযোগ আনা হয়।


3. একজন পরিচালক হিসাবে অযোগ্যতা: যে পরিচালকরা তাদের আইনি দায়িত্ব লঙ্ঘন করেন তারা ভবিষ্যতে পরিচালক হিসাবে কাজ করার অযোগ্য হতে পারেন। আদালত বা নিয়ন্ত্রক কর্তৃপক্ষ একটি নির্দিষ্ট সময়ের জন্য বা স্থায়ীভাবে একজন পরিচালককে অযোগ্য ঘোষণা করতে পারে।


উদাহরণ: একটি কোম্পানির একজন পরিচালক তার ব্যক্তিগত স্বার্থকে উপকৃত করে এমন একটি চুক্তি অনুমোদন করে তার বিশ্বস্ত দায়িত্ব লঙ্ঘন করেছেন। আদালত পরিচালককে কোম্পানির ক্ষতিপূরণ দেওয়ার নির্দেশ দেয় এবং তাকে পাঁচ বছরের জন্য পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালনের অযোগ্য ঘোষণা করে।


4. খ্যাতি ক্ষতি: আইনি দায়িত্ব লঙ্ঘন একজন পরিচালকের খ্যাতি ক্ষতি করতে পারে। এটি তাদের ভবিষ্যত কর্মসংস্থান বা ব্যবসার সুযোগ সুরক্ষিত করার ক্ষমতাকে প্রভাবিত করতে পারে।


উদাহরণ: একটি কোম্পানির একজন পরিচালক তৃতীয় পক্ষের কাছে গোপনীয় তথ্য প্রকাশ করে গোপনীয়তা বজায় রাখার জন্য তার দায়িত্ব লঙ্ঘন করেছেন। ঘটনাটি সর্বজনীন হয়ে যায়, এবং পরিচালকের খ্যাতি ক্ষুণ্ন হয়, যার ফলে ভবিষ্যতের কর্মসংস্থান নিশ্চিত করা তার পক্ষে কঠিন হয়ে পড়ে।


5. ব্যক্তিগত আর্থিক ক্ষতি: পরিচালকদের ব্যক্তিগত আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হতে পারে যদি তাদের আইনি দায়িত্ব লঙ্ঘনের জন্য দায়ী করা হয়। পরিচালক হিসাবে অযোগ্য হলে তাদের ব্যক্তিগত সম্পদ থেকে ক্ষতিপূরণ দিতে হতে পারে বা আয়ের ক্ষতির সম্মুখীন হতে হতে পারে।


উদাহরণ: একটি কোম্পানির পরিচালক একটি বড় বিনিয়োগ অনুমোদন করার সময় যথাযথ যত্ন এবং পরিশ্রম করতে ব্যর্থ হন, যার ফলে কোম্পানির জন্য উল্লেখযোগ্য ক্ষতি হয়। শেয়ারহোল্ডাররা দায়িত্ব লঙ্ঘনের জন্য পরিচালকের বিরুদ্ধে মামলা করে এবং আদালত পরিচালককে তার ব্যক্তিগত সম্পদ থেকে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার নির্দেশ দেয়।



উপসংহার


বাংলাদেশে একটি কোম্পানির পরিচালকদের আইনগত দায়িত্ব পালন করতে হয় এবং তা করতে ব্যর্থ হলে তা উল্লেখযোগ্য দায় ও ঝুঁকির কারণ হতে পারে। পরিচালকদের জন্য সরল বিশ্বাসে কাজ করা, যথাযথ যত্ন এবং অধ্যবসায় অনুশীলন করা, স্বার্থের দ্বন্দ্ব এড়ানো, গোপনীয়তা বজায় রাখা এবং আইন ও প্রবিধানের সাথে সম্মতি নিশ্চিত করা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। যে পরিচালকরা তাদের আইনি দায়িত্ব লঙ্ঘন করেন তারা দেওয়ানি বা ফৌজদারি দায়বদ্ধতা, পরিচালক হিসাবে অযোগ্যতা, খ্যাতি ক্ষতি, ব্যক্তিগত আর্থিক ক্ষতি বা এগুলির সংমিশ্রণের মুখোমুখি হতে পারেন। পরিচালকদের তাদের আইনি বাধ্যবাধকতা বোঝা এবং আইনি দায়বদ্ধতা এবং ঝুঁকি এড়াতে সেগুলি পূরণের জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া অপরিহার্য।

Comentários

Avaliado com 0 de 5 estrelas.
Ainda sem avaliações

Adicione uma avaliação
bottom of page